অতিরিক্ত প্রস্রাব হওয়ার কারণে যে ১০টি সমস্যা দেখা দেয়

একজন ব্যক্তির ক্ষেত্রে দিনে বা রাতে অতিরিক্ত প্রস্রাব হওয়ার কারণে জটিল সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। এটিকে মূলত ডাক্তারি ভাষায় ‘পলিউরিয়া (polyuria) নামে বলা হয়।

যদিও মাঝে মাঝে প্রস্রাব বর্ধিত তরল গ্রহণ বা নির্দিষ্ট ওষুধের মতো কারণগুলির কারণে স্বাভাবিক হতে পারে।

তবে ক্রমাগত ‘পলিউরিয়া’ শারীরিক স্বাস্থ্য রক্ষায় এবং জীবনযাত্রার মান উভয়কেই প্রভাবিত করে এমন বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

ঘন ঘন প্রসাব হওয়ার কারণে যেসব সমস্যাগুলি হয়

ডিহাইড্রেশন

অত্যধিক প্রস্রাবের সবচেয়ে তাৎক্ষণিক উদ্বেগের একটি হল ‘ডিহাইড্রেশন’। ঘন ঘন প্রস্রাব করার ফলে শরীর উল্লেখযোগ্য পরিমাণে পানি এবং ইলেক্ট্রোলাইট হারাতে পারে।

যদি তরলগুলি সঠিকভাবে পূরণ না করা হয় তবে `ডিহাইড্রেশন’ হতে পারে।

ডিহাইড্রেশনের ফলে তৃষ্ণা, শুষ্ক মুখ, ক্লান্তি এবং মাথা ঘোরার মতো উপসর্গ দেখা দিতে পারে।

ইলেক্ট্রোলাইট ভারসাম্যহীনতা

ডিহাইড্রেশনের পাশাপাশি, অত্যধিক প্রস্রাব সোডিয়াম, পটাসিয়াম এবং ক্লোরাইড সহ শরীরের ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে।

ইলেক্ট্রোলাইট স্নায়ু এবং পেশী ফাংশন সহ বিভিন্ন শারীরিক ক্রিয়াকলাপের জন্য অপরিহার্য। একটি ভারসাম্যহীনতা পেশী দুর্বলতা, অনিয়মিত হৃদস্পন্দন এবং বিভ্রান্তির মতো উপসর্গের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

ঘুমের সমস্যা

নিয়মিত প্রস্রাব করার জন্য রাতে ঘন ঘন জেগে উঠলে ঘুমের সমস্যা হতে পারে এবং ঘুমের বঞ্চনা হতে পারে।

দুর্বল ঘুমের মানের সুদূরপ্রসারী পরিণতি হতে পারে, যার মধ্যে দুর্বল জ্ঞানীয় কার্যকারিতা, মেজাজের ব্যাঘাত এবং দুর্ঘটনা বা আঘাতের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

দৈনন্দিন কার্যকলাপের উপর প্রভাব

অত্যধিক প্রস্রাব দৈনন্দিন কাজকর্ম এবং জীবনযাত্রার মানকে ব্যাহত করতে পারে। একটি বিশ্রামাগার খোঁজার জন্য ক্রমাগত প্রয়োজন অসুবিধাজনক হতে পারে।

বিশেষ করে এমন পরিস্থিতিতে যেখানে সুবিধার অ্যাক্সেস সীমিত বা অনুপলব্ধ।

এটি সামাজিকভাবে বিচ্ছিন্ন হতে পারে, ব্যক্তিদের নির্দিষ্ট কার্যকলাপ বা সামাজিক সমাবেশ এড়াতে নেতৃত্ব দেয়।

Space are available for Ads
Space are available for Ads

অন্তর্নিহিত স্বাস্থ্যের অবস্থা

‘পলিউরিয়া’ ডায়াবেটিস মেলিটাস, ডায়াবেটিস ইনসিপিডাস, মূত্রনালীর সংক্রমণ এবং কিডনির সমস্যা সহ বিভিন্ন অন্তর্নিহিত স্বাস্থ্য অবস্থার একটি উপসর্গ হতে পারে।

চিকিৎসা না করা হলে, এই অবস্থাগুলি গুরুতর জটিলতা এবং আরও স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে।

স্বাস্থ্য ঝুঁকি

রাতে বারবার বাথরুমে যাওয়া বয়স্কদের মধ্যে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

যেমন ঘুম অবস্থায়, মাথায় আঘাত এবং পা মচকে যাওয়ার মতো আঘাত হতে পারে। যা গতিশীলতার জন্য দীর্ঘমেয়াদী পরিণতি হতে পারে।

মনস্তাত্ত্বিক প্রভাব

দীর্ঘস্থায়ী `পলিউরিয়া’ একটি মনস্তাত্ত্বিক প্রভাব ফেলতে পারে, যার ফলে স্ট্রেস, উদ্বেগ বা হতাশা সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে যদি এটি দৈনন্দিন জীবনকে ব্যাহত করে বা অন্তর্নিহিত দীর্ঘস্থায়ী অবস্থার সাথে যুক্ত হয়। 

অত্যধিক প্রস্রাবের শারীরিক এবং মানসিক স্বাস্থ্য প্রভাবের সাথে মোকাবিলা করা মানসিক সুস্থতার উপর প্রভাব ফেলতে পারে।

আর্থিক খরচ

অত্যধিক প্রস্রাব পরিচালনার জন্য আর্থিক খরচ হতে পারে, যার মধ্যে চিকিৎসা পরামর্শ, ডায়াগনস্টিক পরীক্ষা, ওষুধ এবং সম্ভাব্য জীবনধারা পরিবর্তনের খরচ সহ।

এই খরচগুলি সময়ের সাথে যোগ করতে পারে, বিশেষ করে যদি অন্তর্নিহিত কারণটির জন্য চলমান ব্যবস্থাপনা বা চিকিত্সার প্রয়োজন হয়।

Space are available for Ads
Space are available for Ads

সম্পর্কের উপর প্রভাব

অত্যধিক প্রস্রাব আন্তঃব্যক্তিক সম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে, বিশেষ করে যদি এটি দৈনন্দিন রুটিনে ব্যাঘাত ঘটায় বা সামাজিক কার্যকলাপে সীমাবদ্ধতা সৃষ্টি করে।

পরিবারের সদস্যদের সময়সূচী সামঞ্জস্য করতে বা সহায়তা প্রদানের প্রয়োজন হতে পারে, যা কার্যকরভাবে পরিচালিত না হলে সম্পর্ককে স্ট্রেস করতে পারে।

জীবনের মান হ্রাস

সামগ্রিকভাবে, শারীরিক স্বাস্থ্য, ঘুম, দৈনন্দিন কাজকর্ম, মানসিক সুস্থতা এবং সম্পর্কের উপর অত্যধিক মূত্রত্যাগের ক্রমবর্ধমান প্রভাব একজন ব্যক্তির জীবনযাত্রার মানকে উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করতে পারে।

পলিউরিয়ায় আক্রান্তদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করার জন্য অন্তর্নিহিত কারণের সমাধান করা এবং উপযুক্ত ব্যবস্থাপনার কৌশল বাস্তবায়ন করা অপরিহার্য পদক্ষেপ।

পরিশেষে

যদিও অতিরিক্ত প্রস্রাব হওয়ার কারণে দৈনন্দিন জীবন যাপনে অসুবিধার মতো মনে হতে পারে, এটি স্বাস্থ্য এবং সুস্থতার বিভিন্ন দিকের উপর সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলতে পারে।

‘পলিউরিয়া’ পরিচালনা এবং এর সাথে সম্পর্কিত সমস্যাগুলি প্রশমিত করার জন্য অন্তর্নিহিত কারণ সনাক্ত এবং সমাধানের জন্য চিকিৎসা মূল্যায়নের সন্ধান করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সূত্র:- Right News BD

মন্তব্য করুন

bn_BDBengali